‘হাতুড়ে’ ডায়েটিশিয়ান থেকে সাবধান, পরামর্শের আগে অবশ্যই যাচাই করুন ডিগ্রি ও রিভিউ


নিজস্ব প্রতিবেদন: স্বাস্থ্য সচেতনতার দিকে নজর রেখে ডায়েটিশিয়ান বা পুষ্টিবিদের পরামর্শ নেন অনেকেই। বিশেষত, ওজন কমানো-বাড়ানো, কোনও শারীরিক অসুস্থতা, মাতৃত্বকালে অনেকেই আজকাল একবার হলেও পুষ্টিবিদের পরামর্শ নিয়ে থাকেন। তবে, অজানা কোনও ডায়েটিশিয়ান বা নিউট্রিশন সংস্থার পরামর্শ নেওয়ার ক্ষেত্রেও প্রয়োজন সচেতনতার।

আরও পড়ুন-টাকা নেই? টাকা নেই?… রাজ্যকে কেন্দ্রের দেওয়া ৩০৮৬ কোটির কোনও হিসেব নেই’

শুধু সামনাসামনিই নয়, সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে যোগাযোগ করে ডায়েটিশিয়ানের পরামর্শ নিয়ে থাকেন অনেকেই। তবে, সেক্ষেত্রে ডায়েটিশিয়ানের শিক্ষাগত ডিগ্রি, অন্যান্য ক্লায়েন্টদের রিভিউ ইত্যাদি মাথায় রাখা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। কম সময়ে অধিক ওজন হ্রাসের প্রতিশ্রুতিতে না ভেসে আগে লক্ষ্য রাখুন অন্য দিকগুলিতেও। নয় তো ভুল ডায়েট চার্টে হিতে বিপরীত হতে পারে। তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো ডায়েটিশিয়ান বা নিউট্রিশন সংস্থা থেকে সাবধান থাকুন। কোনও অজানা সূত্র থেকে ওজন কমানো/বাড়ানোর পাউডার বা পিল গ্রহণ না করাই ভাল।

ডায়েটিশিয়ানের পরামর্শ নেওয়ার আগে যাচাই করুন নুন্যতম এই ডিগ্রিগুলি

১. অ্যাপ্লায়েড নিউট্রিশন এন্ড ডায়েটিক্স-এ স্নাতক বা স্নাতকোত্তর। অথবা, ক্লিনিক্যাল নিউট্রিশন এন্ড ডায়েটিক্স-এ স্নাতকোত্তর।

২. অথবা, স্পোর্টস নিউট্রিশন, ফুড সায়েন্স নিউট্রিশনে স্নাতকোত্তর।

৩. নিউট্রিশন এন্ড ডায়েটিক্স-এ স্নাতকোত্তর ডিপ্লোমা।

সেই সঙ্গে প্রয়োজন রেজিস্টার্ড ডায়েটিশিয়ানের ছাড়পত্র। তবেই ডায়েটিশিয়ান হিসাবে পেশাগতভাবে পরামর্শ দিতে পারা সম্ভব।

আরও পড়ুন-জুলাই থেকে স্কুল খোলার প্রস্তাব কেন্দ্রের, তবে শুধুই নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির জন্য

বিশেষভাবে কম সময়ে বিপুল পরিমাণ ওজন কমিয়ে মোটা থেকে রোগা হওয়ার বিজ্ঞাপন থেকে সাবধানে থাকা প্রয়োজন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। কোনও অজানা ওয়েবসাইট বা বই থেকেও হঠাত্ নতুন ডায়েটে প্রবেশ না করাই শ্রেয়। শারীরিক সুস্থতার জন্য প্রতিটি ব্যক্তির বয়স, জীবনযাপন, শারীরিক গঠন ইত্যাদি মাথায় রেখে গুরুত্বপূর্ণ হিসেব নিকেশের মাধ্যমে বিশেষ খাদ্যতালিকা তৈরি করেন পুষ্টিবিদরা। তাই, একজনের ক্ষেত্রে যে খাদ্যাভাস উপকারি, অন্যজনের ক্ষেত্রে তা নাও কাজ করতে পারে। তাছা়ড়া কোনও শারীরিক অসুস্থতার ক্ষেত্রে বিশেষ খাদ্যাভাসের প্রয়োজন হলেও সেক্ষেত্রে পরামর্শ নিন রেজিস্টার্ড পুষ্টিবিদের।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *