ওয়াজিদ খানের মৃত্যুর পরই ফের জল্পনা, দেখুন কী হল বলিউডের হাই প্রোফাইল বাড়িতে


নিজস্ব প্রতিবেদন : ওয়াজিদ খানের মত্যুর রেশ কাটতে না কাটতে প্রকাশ্যে এল আরও একটি খবর। রিপোর্টে প্রকাশ, বলিউডের প্রয়াত সঙ্গীত পরিচালকের মা রেজিনা খানও করোনা পজিটিভ। শুধু তাই নয়, ছেলের আগেই কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত হন রেজিনা খান। সম্প্রতি তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানেই এক করোনা রোগীর সংস্পর্শে আসার পর ওই ভাইরাসে আক্রান্ত হন সাজিদ-ওয়াজিদের মা। রেজিনা খানের আক্রান্ত হওয়ার পরই করোনায় সংক্রমিত হন ওয়াজিদ খান। তবে রেজিনা খান বর্তমানে ক্রমশ সুস্থ হয়ে উঠছেন বলে খবর।

 

আরও পড়ুন : হাসপাতালে বসে গাইছেন ‘হুড় হুড় দাবাং দাবাং’, মৃত্যুর আগেও হাসি মুখে গান ওয়াজিদ খানের

এদিকে জানা যাচ্ছে, কিডনির সমস্যা-সহ একাধিক রোগে আক্রান্ত ছিলেন ওয়াজিদ খান। ফলে মুম্বইয়ের চেম্বুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরই জানা যায়, করোনায় আক্রান্ত ওয়াজিদ খান। তবে কিডনির সমস্যা এবং হৃদযন্ত্র বিকলের ফলে ওয়াজিদের মৃত্যু হয়েছে বলে বেশ কিছু সংবাদমাধ্যম দাবি করতে শুরু করে। আবার কেউ কেউ দাবি করতে শুরু করেন, কিডনি এবং হৃদযন্ত্রে সমস্যা থাকলেও, করোনা সংক্রমণের জেরেই মৃত্যু হয় ওয়াজিদ খানের।

আরও পড়ুন : ভরসোভায় ইরফানের পাশে সমাধিস্ত ওয়াজিদ খান, ভেঙে পড়লেন সলমন

যদিও বৃহন্মুম্বই মিউনিসিপাল কর্পোরেশনের তরফে মৃত্যুর পর যে সার্টিফিকেট দেওয়া হয়েছে, সেখানে ওয়াজিদ খান করোনায় আক্রান্ত ছিলেন বলে প্রকাশ করা হয়েছে বলে খবর।

প্রসঙ্গত ১ জুন রাত ১টা নাগাদ মৃত্যু হয় সাজিদ-ওয়াজিদ-খ্যাত জুটির ওয়াজিদ খানের। ভোরের আলো ফুটতেই সেই খবর প্রকাশ করেন সাজিদ খান। ওয়াজিদের মৃত্য়ুর খবরে শোকস্তব্ধ হয়ে পড়ে গোট বলিউড। অমিতাভ বচ্চন থেকে অক্ষয় কুমার, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, সলমন খান, একের পর এক তারকা শোক প্রকাশ করতে শুরু করেন ওয়াজিদ খানের মৃত্যুর খবরে। 





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *